ব্যাংক একাউন্ট মেইনটেন্যান্স ফি বছরে কত

লেনদেন করার জন্য আমরা সাধারণত তিন ধরনের ব্যাংক ডিপোজিট হিসাব পরিচালনা করে থাকি। সেভিংস ডিপোজিট একাউন্ট, কারেন্ট ডিপোজিট একাউন্ট এবং শর্ট টার্ম ডিপোজিট একাউন্ট। এই তিন ধরনের ডিপোজিট হিসাব পরিচালনা করার জন্য, বছরে দুইবার অ্যাকাউন্ট মেইনটেনেন্স ফি প্রদান করতে হয়। জুন মাসের শেষের দিকে একবার এবং ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে একবার, ব্যাংক কর্তৃপক্ষ হিসাব থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি কেটে নেয়। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট পরিচালনা ফি সাধারণত প্রত্যেকটা ব্যাংক একই ধরণের হয়ে থাকে। এখানে উল্লেখ্য যে মেইনটেন্যান্স ফি এর সাথে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রদান করতে হয়।

For Saving Account:

i) Average Balance Up-to Tk.10,000/- : Free (Half Yearly)
ii) Average Balance From Tk. 10,001/- to Tk. 25,000/- : Tk.100/- (Half Yearly)
iii) Average Balance From Tk. 25,001/- to Tk.2.00 lac : Tk.200/- (Half Yearly)
iv) Average Balance From Tk. 2,00,001/- to Tk.10.00 lac : Tk.250/- (Half Yearly)
v) Average Balance Above Tk.10.00 lac : Tk.300/- (Half Yearly)

ব্যাংক আপনার কাছ থেকে বছরে কত টাকা কেটে নেয়।

For Current Account : TK.300/- Half Yearly

For Short Term Deposit : TK.500/- Half Yearly

  • 15% VAT will be added.

এক্সাইজ ডিউটি বা আবগারি শুল্ক
অ্যাকাউন্ট মেইনটেন্যান্স ফি ছাড়াও আপনার হিসাব থেকে ক্যালেন্ডার ইয়ারে আরেকটি ফি কর্তন করা হয়। সেটা শুধু ডিসেম্বর মাসে কর্তন করা হয়। এর নাম হলো আবগারি শুল্ক বা এক্সাইজ ডিউটি। ২০১৭ সালের জুলাই মাসের ১ তারিখের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ক্যালেন্ডার বছরে আপনার অ্যাকাউন্টে ডেবিট অথবা ক্রেডিট ব্যালেন্স যদি-

আরো পড়তে পারেন:  বিকাশ থেকে কিভাবে লোন পাবেন

– এক লক্ষ টাকা ডেবিট অথবা ক্রেডিট ব্যালেন্স অতিক্রম না করে তাহলে আপনার একাউন্ট থেকে কোন আবগারি শুল্ক কর্তন করা হবে না।
– ডেবিট অথবা ক্রেডিট ব্যালেন্স যদি এক লক্ষ টাকা অতিক্রম করে কিন্তু ৫ লক্ষ টাকা অতিক্রম না করে, তাহলে আপনাকে ১৫০ টাকা আবগারি শুল্ক প্রদান করতে হবে।
– ডেবিট অথবা ক্রেডিট ব্যালেন্স ৫ লক্ষ টাকার বেশি কিন্তু ১০ লক্ষ টাকার কম হলে পাঁচশত টাকা আবগারি শুল্ক প্রদান করতে হবে।
– ডেবিট অথবা ক্রেডিট ব্যালেন্স ১০ লক্ষ টাকার বেশি কিন্তু ১ কোটি টাকার কম হলে ৩০০০ টাকা আবগারি শুল্ক ( Excise Duty ) প্রদান করতে হবে।
– ডেবিট অথবা ক্রেডিট ব্যালেন্স ১ কোটি টাকার বেশি কিন্তু ৫ কোটি টাকার কম হলে ১৫ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক ( Excise Duty ) প্রদান করতে হবে।
– আর ৫ কোটি টাকার বেশি যে কোন পরিমাণ ডেবিট অথবা ক্রেডিট ব্যালেন্সের জন্য ৪০ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক ( Excise Duty ) প্রদান করতে হবে।

ব্যাংক আপনার কাছ থেকে বছরে কত টাকা কেটে নেয়

চেক বই
চেক বই এর প্রতিটি পাতার জন্য সর্বনিম্ন ২ টাকা থেকে শুরু করে ১০ টাকা বা তার বেশিও হতে পারে। চেক বইয়ের প্রতি পাতার মূল্য সাধারণত একেক ব্যাংকে একেক ধরনের হয়ে থাকে। কোন কোন ব্যাংক, অ্যাকাউন্ট খোলার সঙ্গে সঙ্গেই ১০ পাতা থেকে শুরু করে ২৫ পাতার চেক বই ফ্রি ফ্রি দিয়ে থাকে। এখানে আরেকটি বিষয় উল্লেখ্য যে, কোন কোন ব্যাংকে প্রত্যেক পাতা চেক এর মূল্য সেভিংস অ্যাকাউন্ট এর জন্য এক রকম, কারেন্ট একাউন্ট এবং শর্ট টার্ম ডিপোজিট একাউন্ট এর জন্য এক রকম হয়ে থাকে। সাধারণত সেভিংস অ্যাকাউন্টের জন্য চেক বইয়ের পাতার মূল্য তুলনামূলকভাবে কম হয়ে থাকে এবং বাকি দুই ধরনের হিসাবের জন্য চেক বইয়ের পাতার মূল্য তুলনামূলকভাবে বেশি হয়ে থাকে।

আরো পড়তে পারেন:  INTEREST RATE IN BANGLADESH

ডিপোজিট হিসাব করলে সাধারণত আপনাকে উপরিউক্ত খরচগুলো অবশ্যই বহন করতে হবে। তাই হিসাব খোলার আগে অবশ্যই জেনে বুঝে পছন্দমত ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলবেন।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *